এই মুহূর্তে
Home > কবিতা

কবিতা

কবি নফর আলি সেখের একটি প্রতিবাদী কবিতা ‘মিছিলে পা মেলাও’

মিছিলে পা মেলাও নফর আলি সেখ প্রতিটি ফুলের পাপড়িতে পা দাও এখন প্রতিটি দিন ভেঙে দাও মিছিলে মিছিলে…… শাসকের রক্ত চক্ষু উপেক্ষা করো…. দিনে পাঁচবার চুম্বন করা আমার মাতৃভূমি আজ বিপন্ন সমস্ত চক্রান্তের দেওয়ালে এঁকে দাও কালো রঙ। আমার কর্ষন করা মাতৃভূমি আজ বিপন্ন – নরম বৃষ্টিকনায় আমার হৃদয় জেগে …

আরও পড়ুন »

কবি শুভায়ুর রহমানের একটি প্রতিবাদী কবিতা ‘অধ্যায়’

অধ্যায় শুভায়ুর রহমান ———————- আবার অধ্যায় যোগ হবে ইতিহাসে, হয়তো বইয়ের শেষ অংশে জুড়ে দেওয়া হবে নতুন অধ্যায়ের কলঙ্কিত মুহুর্ত! সেখানে জুড়ে থাকবে স্বৈরাচারী শাসকের কথা লেখা থাকবে স্বৈরাচারী শাসকের দমন পীড়ন নীতি লেখা থাকবে জনতার মাঝে বিভাজন নীতি লেখা থাকবে রক্তচক্ষুর রোষানলে মানুষকে ভীত সন্ত্রস্ত হতে হয়েছে লেখা থাকবে …

আরও পড়ুন »

বাংলাদেশের কবি শাবলু শাহাবউদ্দিনের রোমান্টিক কবিতা

প্রণয়িনী শাবলু শাহাবউদ্দিন ঐ সুশ্রী প্রণয়িনী নাভি নিম্ন পড়া শাড়ি এই দিন দুপুরে নিতম্ব শৈলী করে পথ দ্যায় পারি কাল কাল মেঘ বরণ লম্বা লম্বা চুল স্বাধীনতা বহি বহি কানে দুলে দুল । নর পুং দিয়ে মন আঁখি জেরায় সারাখন কত যে আকাঙ্ক্ষা রস বয়ে যায় দিম্বণ ললনা দিল না, …

আরও পড়ুন »

বাংলাদেশের কবি শাবলু শাহাবউদ্দিনের একটি কবিতা

আমি শ্রমিক দিন মজুরি শাবলু শাহাবউদ্দিন দিন টা শেষ, এখন পরন্তু বিকেল, শরীর বড়ই ক্লান্ত আমি শ্রমিক দিন মজুরি, সকালে আসি কাজের খোঁজে কাজ তো শেষ, হাতে এসেছে দু’খানা দিব্বি কাঁচা নোট তবুও আমি বড় ক্লান্ত, কানে আসে ভেসে ভেসে ছেলের কান্না দুবেলা দু’ মুঠো খাদ্য ছাড়া আর কিছুই চায় …

আরও পড়ুন »

কবি সেখ প্রিয়াঙ্কার একটি কবিতা “একটি জিজ্ঞাসায় কতটা প্রশ্ন চিহ্ন”

একটি জিজ্ঞাসায় কতটা প্রশ্ন চিহ্ন সেখ প্রিয়াঙ্কা ছেলেটির মধ্যে ভালোবাসার আরক ছিল না , তাই হয়তো প্রেমিক হতে চেয়েও পারেনি! হৃদয়ের সবটুকু রং নিংড়ে নিয়ে প্রেমের কবিতাও লিখতে পারেনি, কারও অজানা চুনসুরকির দেওয়াল, স্যাঁতস্যাঁতে কলতলা মাড়ায়নি যে মানুষটি নিত্যদিন অপরাজিতার পাপড়ির রঙ মাখতে চেয়েছিল, তার গল্পের কাহিনী বুঝতে অনেকাংশেই আনকোরা …

আরও পড়ুন »

শ্যামাপ্রসাদ ঘোষ -এর একটি কবিতা ‘মন কেমনের অসুখ’

মন কেমনের অসুখ শ্যামাপ্রসাদ ঘোষ রাজামশাই এর ছেলের অসুখ কী অসুখ কেমন অসুখ কেউ হদিশ পায় না। রাজবৈদ্য হাল ছাড়তেই ডাক পড়ল অমল কবিরাজের। কবিরাজ নাড়ি টিপে বললেন,এ মন কেমনের অসুখ গো সারা গায়ে ধুলো মাখতে হবে, তবে যদি সারে। ছেড়ে আসা গ্রাম থেকে ধুলো আনতে হবে মহারাজ আপনাকে নিজে …

আরও পড়ুন »

হাবিব মন্ডল -এর একটি কবিতা ‘শূন্যতা’

শূন্যতা  হাবিব মন্ডল বৃষ্টি ঝরা সন্ধ্যায় ভিজে মাটির বুক থেকে তোর চীরায়িত গন্ধ শ্বাসে-প্রশ্বাসে নিরন্তন বাতাসের সন্-সন্  শব্দ গেয়ে চলেছে তোর নাম এঁধো প্রকৃতি ক্ষনে ক্ষনে আমায় মাতাল করছে তোর শূন্যতা শিরা উপশিরায় বিদ্যুৎ ছেড়ে যায় ফেলে আসা স্মৃতির তোড়া ক্ষত বিক্ষত করছে অনিবার চোখে অশ্রুবর্ষন। ভাগ্যের ক্রর প্রহসনে- হৃদয় …

আরও পড়ুন »

কবি আজাদ মামুন -এর একটি কবিতা ‘জীবন ও স্বপ্ন’

জীবন ও স্বপ্ন আজাদ মামুন শ্রান্তি আর অবসাদে দুর্বহ হয়ে ওঠে আমাদের জীবন, আকাশের ছাউনি তলে মৃত্তিকা আমাদের শয়ন, দিগন্তগ্রাসী দৃষ্টির তীরে শিকার হয় আকাশ, নিচে জড়সড় ক্ষীণ দেহের শান্ত বসবাস। আমাদের স্বপ্নেরা সমগ্র আকাশে মেলে তাদের কুঁড়ি, বাঁধনহারা বাসনারা ছুটে চলে যেন নাটাইহীন ঘুড়ি, হৃদয়ের ভাঁজে ভাঁজে বিরাজিত শতশত মমতা, …

আরও পড়ুন »

শুভায়ুর রহমান -এর একটি কবিতা ‘দেহ, মন নাকি ছাই’

দেহ, মন নাকি ছাই শুভায়ুর রহমান এক একটি সেকেন্ড নয়,সময় নয়,যেন যুগ যুগ,শত শত বছর, সব কথা, কথা নয়,সব মুহুর্ত, মুহুর্ত নয় , সব চাওয়া পাওয়া আর চাওয়া পাওয়াতে আটকে নেই। চাপা পড়েগেছে হৃদয়ের ভগ্ন স্তূপে,কোষে কোষে জীবন্ত জীবাশ্ম। গ্রামের শ্রমিক মাটি খুঁড়তে প্রথম আবিষ্কার, শহরের প্রত্নবিদ দেখেই বলেছে,এই নির্দেশন …

আরও পড়ুন »

কবি রফিকুল হাসান -এর একটি কবিতা ‘হোক কলরব’

হোক কলরব রফিকুল হাসান  বিশ্বকাপের উত্তাপে বঙ্গজুড়ে বুক কাঁপে অঙ্গজুড়ে থরহরি মনটা যে আজ খুব চাপে বিশ্বকাপের উত্তাপে বিশ্বজুড়ে বুক কাঁপে! ভুবনজয়ী হলে’রে মন ভুগবো না আর মনস্তাপে চতুর্দিক খুব নির্ভীক, খেলব খেলা মাতিয়ে মাঠ পেয়েছি সুযোগ দেখিয়ে দেবো শিখে নেব সহজপাঠ! মাটি চুমে স্বদেশভূমে শুধুই হর্ষ নয় বিমর্ষ এবার …

আরও পড়ুন »